UnishKuri
Web-career.jpg
maidan_strip

হকি-ব্যাডমিন্টনে জয়জয়কার ভারতের

কেউ-কেউ বলছেন, ভাগ্যিস কাল ভারতীয় ক্রিকেট দল চ্যাম্পিয়ন্‌স ট্রফির ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে অমন বিচ্ছিরি ভাবে দুরমুশ হয়েছিল! তা না হলে গতকাল যে অন্য দু’খানি খেলায় আমাদের দেশ জয় পেয়েছে, সেকথা হয়তো অজানাই থেকে যেত আমাদের অনেকের। সেই দুই খেলার একটি ইন্দোনেশিয়া সুপার সিরিজ় (ব্যাডমিন্টন)। অন্যটি ওয়ার্ল্ড লিগ সেমিফাইনাল্‌স (ফুটবল)। ব্যাডমিন্টনে গতকাল জাপানের কাজুমাসা সাকাইকে হারিয়ে ইন্দোনেশিয়া সুপার সিরিজ় জিতে নিলেন ভারতের কিদাম্বি শ্রীকান্ত। অন্যদিকে ওয়ার্ল্ড লিগ সেমিফাইনাল্‌সে পাকিস্তানকে ৭-১ গোলে উড়িয়ে দিয়ে গতকালই শেষ আটে পৌঁছল ভারতীয় হকি টিম। ভারতের হয়ে এদিন গোলগুলি করেন আকাশদীপ সিংহ (২), হরমনপ্রীত সিংহ (২), তলবিন্দর সিংহ (২) এবং প্রদীপ মোর। পাকিস্তানের একমাত্র গোলদাতা উমর ভুট্টা। দুরন্ত এইসব জয়ের জন্য ভারতীয় হকি টিম ও কিদাম্বিকে অভিনন্দন। আর চ্যাম্পিয়ন্‌স ট্রফিতে পাকিস্তানের হাতে দুরমুশ হওয়া ভারতীয় ক্রিকেট টিমের জন্য? বুকভরা সমবেদনা ছাড়া তোমাদের আর কী-ই বা দিতে পারি…

ভারতের মেয়ের বিশ্বরেকর্ড

এই সবে খবর পাওয়া গিয়েছিল, বাংলার মেয়ে Jhulan Goswami একদিনের ক্রিকেটে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী হয়েছেন। দেশের মেয়েদের ক্রিকেটে আরও একটা জমজমাট সুখবর এল গতকাল, যখন একসঙ্গে দু’জন মেয়ে গড়ে ফেললেন বিশ্বরেকর্ড। সোমবার দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে আয়ার্ল্যান্ডের বিরুদ্ধে Deepti Sharma ও Poonam Raut-এর হাতে যে কোনও উইকেটে মহিলাদের একদিনের ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানের পার্টনারশিপের বিশ্বরেকর্ড চলে এল ভারতের ঘরে। দীপ্তি ও পুনম আয়ার্ল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওপেন করতে নেমে প্রথম উইকেটে তুলে নেন ৩২০ রান। এর আগে এই রেকর্ড ছিল ইংল্যান্ডের সারা জেন টেলর ও ক্যারোলিন অ্যাটকিনসের ঝুলিতে (২৬৮ রান)। শুধু যে কোনও উইকেটে সর্বোচ্চ রানের জুটিই নয়, এদিন ১৮৮ রান করে আরও এক রেকর্ড গড়েছেন উত্তরপ্রদেশের মেয়ে দীপ্তি। ভারতীয়দের মধ্যে এটাই সর্বোচ্চ রান। পুনম এদিন করেছেন ১০৯ রান। তা ছাড়াও এই দুই কন্যের সৌজন্যে এদিনই প্রথম ওয়ান ডে ক্রিকেটে তিনশোর বেশি রান করলেন মেয়েরা।
পুনঃ নির্ভয়ার ধর্ষকদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার পরেও দেশের নানা প্রান্তে ধর্ষণ, কন্যাভ্রূণ হত্যার মতো ঘটনা যখন কিছুতেই কমছে না, তার মাঝেই দুই মেয়ের এমন অবিশ্বাস্য কীর্তি দেখলে আনন্দে চোখে জল আসে বই কী! CHAK DE GIRLS!

আবারও বিশ্বরেকর্ড রজারের!

২০০৩, ২০০৪, ২০০৫, ২০০৬, ২০০৭, ২০০৯, ২০১২, ২০১৭। পিট সাম্প্রাসের রেকর্ড ভেঙে উইম্বলডনে আটবারের চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেলেন Roger Federer। ১৯ খানা গ্র্যান্ড স্ল্যামের একমেবাদ্বিতীয়ম মালিকও এই গ্রহে এখন তিনিই। আগামী মাসে ৩৬-এ পা দেবেন যে মানুষটা, রবিবার তাঁর একপেশে জয় দেখতে-দেখতে কোত্থাও মনে হল না, ক্রমাগত বাড়তে থাকা বয়স তাঁকে এতটুকু কাবু করতে পেরেছে। জয়ের পর পরাজিত মারিনের উদ্দেশে রজার বললেন, ‘‘জীবনে মাঝে-মাঝেই অনেক নিষ্ঠুরতা সহ্য করতে হয়। মারিন, তুমি গোটা টুর্নামেন্টেই অসাধারণ খেলেছ। তোমার তো গর্বিত হওয়া উচিত। মনে রাখবে সবসময় ফাইনালটা দারুণ কিছু যায় না। কী আর করা যাবে। আর আমার ক্ষেত্রে পুরোটাই অবিশ্বাস্য এক অভিজ্ঞতা। একটাও সেট না হারিয়ে ট্রফি তোলাটা আমার কাছে অনেকটা ম্যাজিকের মতো। একটা সময় তো এখানে এবার খেলতে পারব কী না, সেটাই নিশ্চিত ছিল না। কিন্তু স্বপ্নটাকে খুন করিনি। আটবার জেতার স্বপ্ন…’’

সত্যিই তো। ঈশ্বর কখনও স্বপ্ন খুন করতে পারেন? তিনি তো স্বপ্ন দেখান মানুষকে। ঠিক যেমনটা দেখিয়ে চলেছেন রজার ফেডেরার…