UnishKuri
Web3.jpg
Career Counselling
 
আমি আগে খুব মোটা ছিলাম। সম্প্রতি প্রায় ১০কেজি ওজন কমিয়েছি অনেক কষ্ট করে। তবে একটা নতুন সমস্যা হল এর ফলে স্ট্রেচ মার্কস! এই সমস্যার সমাধান করব কীভাবে?

সেবন্তী ঘোষাল (বেহালা, সরশুনা)
 
তোমার এই সমস্যার সমাধান রয়েছে পাতিলেবুর হাতে। স্ট্রেচ মার্কসের উপর ভাল কাজ করে পাতিলেবুর রস। ত্বক কোষ এক্সফোলিয়েট করে মৃতকোষ সরিয়ে স্ট্রেচ মার্কস দূর করে। একটি পাত্রে একটা গোটা পাতিলেবুর রস নিয়ে তাতে এক চিমটে বেকিং পাউডার মিশিয়ে নেবে। এই পেস্ট স্ট্রেচ মার্কসের উপর লাগিয়ে নেবে। চাইলে এই পেস্টে একটু হলুদবাটাও মিশিয়ে নিতে পার। পেস্টটি লাগিয়ে কিছুক্ষণ রাখার পর একটা শুকনো কাপড় দিয়ে হালকা করে মুছে নেবে। নিয়মিত এই পদ্ধতিটি করলে স্ট্রেট মার্কস উধাও হয়ে যাবে।

HOME REMEDIES FOR HAIR LOSS

চুল পড়ার সমস্যা আমাদের সকলেরই সারা বছর ধরে কম বেশি থাকে, কিন্তু যখন সেটা বেশি মাত্রায় হয় তখনই চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। বিভিন্ন কারণে এই চুল পড়ার মস্যা হতে পারে। অনেক সময় হরমোনাল কারণে চুল পড়তে পারে, কখনও বা ধুলো-ময়লা ও পলিউশনের জন্যও চপল পড়ার সমস্যা দেখা দিতে পারে। তবে কারণ যাই হোক না কেন সমস্যার সমাধানতো করতেই হবে। তাই প্রতিদিনের ব্যস্ততার মধ্যেও একটু সময় বের করে বাড়িতে বসেই চুলের নিয়মিত যত্ন করলেই এর সমাধান পেতে পার।

হেয়ার অয়েল মাসাজ: চুল পড়ার সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে প্রথমেই তোমার চুল ও স্ক্যাল্প অনুসারে হেয়ার অয়েল বেঁছে নিতে হবে। অয়েল মাসাজের জন্য নারকোল তেল, আমন্ড অয়েল, ক্যাস্টর অয়েল, অলিভ অয়েল খুব ভাল। এর মধ্যে যে-কোনও একটি বেঁছে নিয়ে পুরো চুলে ও স্ক্যাল্পে লাগিয়ে আঙুলের ডগা দিয়ে অল্প চার দিয়ে মাসাজ করে নেবে। অয়েল মাসাজের ফলে স্ক্যাল্পে রক্ত চলাচল ভাল হয় ফলে চুল পড়ার সমস্যাও কমে যায়। সপ্তাহে অন্তত একদিন অয়েল মাসাজ করলে ভাল ফল পাবে।

পেঁয়াজের রস: পেঁয়াজের রসে থাকে সালভাল এবং অ্যান্টি ব্যকটেরিায়াল অপাদান যা স্ক্যাল্পে রক্ত চলাচলে সাহায্য করে এবং স্ক্যাল্পে কোনও রকম ইনফেকশন হলে তার থেকে মুক্তি দেয়। ফলে চুল পড়াো কমে যায়। এক জন্য একটা গোটা পেঁয়াজের রস করে সেটা স্ক্যাল্পে লাগিয়ে ৩০মিনিট রেখে ভাল করে শ্যাম্পু করে নেবে। পেঁয়াজের রসের সঙ্গে চাইলে অল্প অলিভ অয়েলমিশিয়ে নিলে ভাল ফল পাবে।

অ্যালোভেরা জেল: অ্যালোভেরা জেল-এ থাকে এনজ়াইম এছাড়া এর মধ্যে থাকে ক্ষার জাতীয় উপাদান যা স্ক্যাল্পের পিএইচ ব্যালেন্স বজায় রাখে ফলে। এর ফলে চুল পড়াও বন্ধ হয় এবং চুল সুন্দরও হয়। এর জন্য কিছুটা অ্যালোভেরা জেল বা জুস নিয়ে স্ক্যাল্পে লাগিয়ে ৩০মিনিট রেখে ঈষদুষ্ণ ল দিয়ে ধুয়ে নিয়ে শ্যাম্পু করে নেবে। সম্পাহে তিন থেকে চার বার এই পদ্ধতিতে চুলের পরিচর্চা করলে চুল পড়ার সমস্যা থেকে তাড়াতাড়ি মুক্তি পাবে।
তবে এর পরেও যদি চুল পড়ার সমস্যা না কমে তাহলে ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়াটাই ভাল।

চুল পড়ার সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে কয়েকটা ঘরোয়া উপায় জানা হয়ে গেল, তাই আর অপেক্ষা না করে আজ থেকেই একটু সময় বের করে চুলের পরিচর্চা শুরু করে দাও!