UnishKuri
Web3.jpg
Career Counselling
 
আমার বয়স ২৭ হছর। গায়ের রং বেশ ফরসা এবং স্কিন ড্রাই। ইদানীং আমার মুখে বেশ কিছু কালো ছেপ-ছোপ দাগ দেখা যাচ্ছে। একটু সানট্যানও হয়েছে মনে হচ্ছে। কী করলে এর থেকে মুক্তি পাব?

অনুশ্রী মন্ডল, দমদম

তুমি বলেছ, তোমার ত্বক শুষ্ক এবং স্কিন টোনও ফরসা। এই ধরনের ত্বকে সাধারণত খুব তাড়াতাড়িই সানট্যান বা পিগমেন্টেশেনের সমস্যা দেখা দিতে পারে। কারণ শুষ্ক ত্বকে সহজেই আর্দ্রতা হারিয়ে যায়। এছাড়া ফরসা স্কিন টোনে রোদে বেরনোর ফলে ত্বকে মেলানিন হরমোনের মাত্রা বেড়ে যায় এর ফলে পিগমেন্টেশন বা সানট্যানের মতো সমস্যাও দেখা দিতে পারে। তাই ত্বককে পিগমেন্টেশন থেকে মুক্তি পেতে বাড়িতে ভাল করে মুখ ধুয়ে মুখের কালো ছোপ-ছোপ অংশে বা ট্যান পড়ে যাওয়া অংশে আলু স্লাইস করে কেটে ১০ মিনিট থেকে ১৫ মিনিট লাগিয়ে চোখ বন্ধ করে রিল্যাক্স করবে। এছাড়া আলু ধুয়ে নিয়ে সেটা পেস্ট করে আলোর রস তৈরি করে নিতে পারো। এই আলোর রস কটন বল দিয়ে পুরো মুখে থুপে-থুপে লাগিয়ে নেবে। কিছুক্ষণ পর জল দিয়ে ভাল করে মুখ ধুয়ে ময়শ্চারাইজ়ার লাগিয়ে নেবে। এই পদ্ধতিটি সপ্তাহে তিনদিন করলে খুব তাড়াতাড়ি সুফল পাবে।

শীতে শাইনি চুল

সিল্কি ও শাইনি চুল সকলেরই ভাল লাগে। কিন্তু এই শীতে চুলের বেশ কিছু সমস্যা দেখা যায়। যতই শ্যাম্পু করো বা কন্ডিশনার লাগাও এই সময় চুল দ্রুতই রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে যা। সঙ্গে খুসকির সমস্যাও দেখা হয়ে থাকে এই শীতকালে। শীতকালে চুলের হাজারো সমস্যা মুক্তি পেতে তাই এবার তোমাদের জন্য রইল কয়েকটি ঝটপট উপায়।

চুলের রুক্ষভাব কাটাতে অয়েল মাসাজ খুব জরুরি। রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে নারকেল তেল, আমন্ড অয়েল এবং আমলা অয়েল একসঙ্গে মিশিয়ে একটু গরম করে নিয়ে সেটা দিয়ে পুরো চুল ও স্ক্যাল্পে মাসাজ করবে। সকালবেলা ভাল করে শ্যাম্পু করে ভেজা চুলে কন্ডিশনার লাগিয়ে দুই থেকে তিন মিনিট রেখে ভাল করে ধুয়ে নেবে। তবে কন্ডিশনার কেবল মাত্র চুলের লেংথেই লাগাবে।

চুলের শাইন আনতে টক দই, ডিম ও মধুর কম্বো খুব ভালো। এই তিনটি উপকরণ দিয়ে একটা প্যাক বানিয়ে সেটা পুরো চুলে ও স্ক্যাল্পে লাগিয়ে-লাগিয়ে ৩০ মিনিট রেখে ভাল করে শ্যাম্পু করবে। এতে চুল পুষ্টিও পাবে এবং চুল হয়ে উঠবে ঝকঝকে।

নারকেল তেলের মধ্যে কিছুটা মেথি মিশিয়ে সেটা একটু গরম করে সেই তেল দিয়ে স্ক্যাল্পে মাসাজ করবে এবং চুলের লেংথেও লাগিয়ে নেবে। এইভাবে সারারাত রেখে পরেরদিন সকালে শ্যাম্পু করে নেবে। মেথির মধ্যে থাকা অ্যান্টিফাঙ্গাল ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপকরণ চুলে খুসকি দূর করতে সাহায্য করবে, এর সঙ্গে চুল পড়াও বন্ধ করবে এবং চুলে শাইন আনবে।

বাড়িতে বসেই ঝটপট চুলের যত্ন করার কয়েকটা সহজ উপায় জানা হয়ে গেল। আর দেরি না করে তাই আজ থেকেই শুরু করো চুলের যত্নআত্তি!