UnishKuri
Web3.jpg
Career Counselling
 
আমার বয়স ২০ বছর। গত চারবছর আমি ব্রণর সমস্যায় ভুগছি। এই সমস্যা দূর করার জন্য সমস্ত রকমের পার্লার ট্রিটমেন্ট করিয়েছি। কিন্তু কোনও উপকার পাইনি। তাই ঘরোর উপায়ে কীভাবে এর থেকে মুক্তি পাব, বললে খুব উপকার হয়।

সমাপ্তি রায়, দক্ষিণ ২৪ পরগনা

ভুল পার্লার ট্রিটমেন্টের ফলে অনেক সময় ব্রণর সমস্যা আরও বেড়ে যাতে পারে। ব্রণর সমস্যা কমাতে স্কিনের যত্নের সঙ্গে-সঙ্গে সঠিক খাওয়া-দাওয়া ও এক্সারসাইজ়েরও অনেক ভূমিকা আছে। এর সঙ্গে একটা স্বাস্থ্যকর লাইফস্টাইলও মেনটেন করা খুব দরকার। ঘরোয়া টোটকার জন্য চন্দন পাউডার, বেসন ও গোলাপজল দিয়ে একটা প্যাক বানিয়ে নেবে। এই প্যাক ২০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রেখে ভাল করে মুখ ধুয়ে নেবে। বাইরে থেকে ফিরে অবশ্যই ফেসওয়াশ দিয়ে ভাল করে মুখ পরিষ্কার করে নেবে। এছাড়া ক্যালেন্ডুলা সাবান বা মিন্ট ক্লেনজ়ারও নিয়মিত ব্যবহার করলে সুফল পাবে।

HOMEMADE INSTANT GLOW FACEPACK FOR GLOWING SKIN

শুরু হয়ে গিয়েছে পার্টি সিজ়ন। কোনও দিন বন্ধুদের সঙ্গে, কোনও দিন আবার পরিবার বা পার্টনারের সঙ্গে ডিনার পার্টি, প্রতিদিনই কিছু না কিছু লেগেই আছে। তাই এই ফুল অন পার্টি টাইমে নিজেকেও সবসময় রাখতে হবে গ্লোয়িং ও গর্জাস। তবে সারাদিনের কলেজ, টিউশন বা কাজ সেরে দিনের শেষে অনেক সময়ই তোমার স্কিন হয়ে যায় নিষ্প্রাণ। কিন্তু পার্টিতে তো আর এই রুক্ষ, শুষ্ক ত্বক নিয়ে যাওয়া যায় না। তাই পার্টি হোক বা যে-কোনও অকেশনে যাওয়ার আগে ঝটপট গ্লোয়িং স্কিন পেতে কয়েকটা শর্টকাট ফেসপ্যাকের সন্ধান তোমাদের জন্য দেওয়া হল, যাতে প্রতিটি পার্টিতে তুমিই হয়ে ওঠো শো-স্টপার।

তৈলাক্ত ত্বকে পেঁপের ফেসপ্যাক: কয়েকটা পাকা পেঁপের টুকরো নিয়ে খোসা ও বীজ ছাড়িয়ে নিয়ে পেঁপের টুকরোগুলো ভাল করে পেস্ট করে নেবে। এই পেস্ট মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে ঠান্ডা জল দিয়ে ভাল করে মুখ ধুয়ে নিলেই দেখবে ত্বক সঙ্গে-সঙ্গে গ্লোয়িং হয়ে উঠেছে।

ওটমিল ফেসপ্যাক: ওটমিল ও ঠান্ডা দুধ একসঙ্গে মিশিয়ে সেটা দিয়ে একটা প্যাক বানিয়ে নেবে। এই প্যাক মুখে লাগিয়ে কিছুক্ষণ রাখবে, যতক্ষণ না পর্যন্ত প্যাকটা শুকিয়ে যায়। এর পর ভাল করে মুখ ধুয়ে নিলে ত্বকের গ্লো ফিরে পাবে।

পাকা কলা ও মধুর ফেসপ্যাক: একটা পাকা কলা চটকে তার সঙ্গে কিছুটা মধু মিশিয়ে ঝটপট একটা প্যাক বানিয়ে নেবে। এই প্যাক মুখে লাগিয়ে আঙুলের ডগা দিয়ে হালকা করে সার্কুলার মোশনে মাসাজ করবে। এর কিছুক্ষণ পর জল দিয়ে ভাল করে মুখ ধুয়ে নেবে। এই প্যাক সেনসিটিভ ত্বকের জন্যও খুব উপকারী।

আমলা ফেসপ্যাক: ত্বকে ব্রণ বা ফুসকুড়ির সমস্যা থাকলে আমলকির রস বানিয়ে সেটা পুরো মুখে কটন বলের সাহায্যে থুপে-থুপে লাগিয়ে কিছুক্ষণ হালকা মাসাজ করে জল দিয়ে ধুয়ে নেবে। এতে ব্রণর সমস্যাও যেমন কমবে তেমনই ত্বক উজ্জ্বলও হবে।

টক দইয়ের প্যাক: পার্টিতে যাওয়ার আগে হাতে সময় খুব কম থাকলে একটু টক দই নিয়ে সেটা পুরো মুখে লাগিয়ে কিছুক্ষণ হালকা মাসাজ করে ধুয়ে নেবে। এতে মুখে অতিরিক্ত তৈলাক্তভাবও চলে যাবে এবং ত্বকে জেল্লাও আসবে। কিন্তু মনে রাখবে ঘরে পাতা টক দই হলেই ভাল হয়।

আমন্ড ও মিল্ক ক্রিমের প্যাক:
কয়েকটা ভেজানো আমন্ড বাদাম পেস্ট করে তার সঙ্গে কিছুটা মিল্ক ক্রিম মিশিয়ে একটা প্যাক বানিয়ে নবে। এই প্যাক মুখে লাগিয়ে কিছুক্ষণ আঙুলের ডগা দিয়ে মাসাজ করবে। এর পর কিছুক্ষণ বসে থেকে রিল্যাক্স করবে, যাতে ত্বকের গভীরে প্যাকের উপকারিতা পৌঁছে যায়। এর পর জল দিয়ে ভাল করে মুখ ধুয়ে নিলেই ত্বক হয়ে উঠবে গ্লোয়িং।

গ্লোয়িং স্কিন পাওয়ার গোপন ও শর্টকাট উপায় তো জানা হয়ে গেল, এবার সব পার্টিতে তুমিই হয়ে উঠবে স্টার!