UnishKuri
Web-entertainment-2.jpg

ফ্যাট CUTTER ফুড!
খাবার খেলে ওজন বাড়ে, তবে এমন কী কোনও খাবার আছে যা খেলে ঝর ঝর করে ওজন কমে? আছে বইকী! এবার তোমার সঙ্গে তাদের পরিচয় করাতে চলেছেন পারমিতা মুখোপাধ্যায়
টোম্যাটো: লো ক্যালরি, লো-ফ্যাট এবং rich in fiber… আর কী চাই!
আপেল: সারাদিনে পরিমাণ মতো খাবার আর একটা গোটা আপেল খেলেই তোমার মেদ মুক্তি স্রেফ কয়েকদিনের অপেক্ষা
ন্যাশপাতি: আপেলের পরই এর স্থান। কারণ কমবেশি একই।

কলা: বড় কলার বদলে ছোট কলা খাওয়ার অভ্যেস বেশ ভাল।

কমলালেবু: একেই ভিটামিন সি-র ভাণ্ডার তায় লো-ক্যালরি সঙ্গে আবার ব্লাড সুগার লেভেল রেগুলেট করে। এক অঙ্গে আর কত গুণ চাই!
মাশরুম: ফ্যাট বা সুগারের নামগন্ধ নেই। তাই ফ্যাট কমাতে চাইলে পেট ভরা খাবার হয়ে উঠতে পারে এই মাশরুম।
ব্রকোলি: পুষ্টিগুণ এই সবজিতে ভরপুর তবে ক্যালরি খুবই কম। তাই ফ্যাট cutter হিসেবে এর কদর বেশ অনেকটাই।
পালং শাক: ফ্যাটের পরম বন্ধু হল কার্বোহাইড্রেট। আর ঠিক এই জিনিসটাই নেই পালং শাকে। রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার। ফ্যাট cutter হিসেবে তাই এর চেয়ে ভাল খাবার খুঁজে পাওয়া কঠিন।
গ্রিন টি: রোজ সকালে এবং রাতে নিয়মিত এক কাপ করে গ্রিন টি খেলে মেদ তোমার শরীরে কোনওদিনও ঘাঁটি গাড়তে পারবে না।
টক দই: শেষ পাতে দই-মিষ্টির বদলে রাখো এক কাপ টক দই। নিয়মিত চিনি ছাড়া টক দই খেলে ওজন কমবে হুরহুর করে।
এই খাবারগুলো খেলে ওজন কমে। তবে শুধু নিয়মিত এই খাবারগুলোই খেয়ে গেলে হবে না। সঙ্গে এমনকিছু কখনই খাবে না যা আবার শরীরে ফ্যাটের পরিমাণ বাড়িয়ে তুলে এদের গোল পোস্টে যাওয়ার রাস্তা আটকে দাঁড়াবে। য়েমন ভাত, মিষ্টি, চিনি, কোল্ড ড্রিঙ্ক জাতীয় খাবার পুরোপুরি বর্জন করলেই fat cutter হিসেবে এই সব খাবারের কেরামতি দেখতে পারবে চোখের উপর।