UnishKuri
Web-entertainment-2.jpg
হাইমেন কী? হাইমেনের সঙ্গে ভার্জিনিটির কী সম্পর্ক?

হাইমেন সম্পর্কে কিছু ইনফো পেলে উপকৃত হতাম।
অরিজিত্‌ দত্ত, ই মেল মারফত

যোনিদ্বার বা ভ্যাজাইনার মুখে খুব পাতলা একটা পরদা থাকে, যাকে হাইমেন বলে। এটি অনেকসময় মিলনের সময় ফেটে যাওয়ার ফলে রক্তপাত হয়। তবে রক্তপাত যে হবেই, তার কোনও মানে নেই। অনেকেই মনে করে, হাইমেন ফেটে যাওয়ার অর্থ ভার্জিনিটি হারানো। তবে হাইমেন ছিঁড়ে যাওয়া বা না যাওয়ার সঙ্গে ভার্জিনিটির কিন্তু কোনও সম্পর্ক নেই। অ্যাথলেটদের ক্ষেত্রে এবং বেশি এক্সারসাইজ় বা সাইকেলিং করলেও কখনও-কখনও হাইমেন ফেটে যেতে পারে। হাইমেন ফেটে গেলে আবার রিকনস্ট্রাক্ট করা যায়, তাকে হাইমেনোপ্লাস্টি বলে।
 

আমার বয়স ১৯ বছর। গত মাসের ১০নভেম্বর প্রথম ইন্টারকোর্স করি, ১১ নভেম্বর পিরিয়ড্স শুরু হয়। তা সত্ত্বেও সাবধানতা অবলম্বনের জন্য রাতে গর্ভনিরোধক পিল খাই। তারপর থেকে পিরিয়ড্সের সময় রক্তস্রাবের পরিমাণ কমতে থাকে। এই মাসে এখনও পিরিয়ড্স শুরু হয়নি। আগে ইন্টারকোসের্র অভিজ্ঞতা না থাকায় খুব টেনশনে আছি। প্লিজ় হেল্প মি!
নাম ও ঠিকানা প্রকাশে অনিচ্ছুক

পিরিয়ড্সের সময় রক্তস্রাবের পরিমাণ কমে যাওয়ার একাধিক কারণ থাকতে পারে। প্রথমেই জানাই, গর্ভনিরোধক পদ্ধতিগুলোর এবং শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করার বিষয়ে সঠিকভাবে না জেনেই এ ধরনের সম্পর্ক স্থাপন করা উচিত নয়। তুমি ইউরিন প্রেগন্যান্সি টেস্ট করে দেখলে জানতে পারবে কনসিভ করেছ কি না। তবে পিরিয়ড্সের আগের দিন ইন্টারকোর্স করা হলে গর্ভবতী হওয়ার সম্ভাবনা খুব কম। আজকাল অনেকেই ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া গর্ভনিরোধক পিল খাওয়ার প্রবণতা বাড়ছে। এ ধরনের ওষুধের নানারকম সাইড এফেক্টস আছে। পিরিয়ড্সের সময় রক্তস্রাবের পরিমাণে পরিবর্তন আসতে পারে, অথবা অনিয়মিত পিরিয়ড্স হতে পারে। তাই এ ধরনের পিল খাওয়ার আগে গাইনিকলজিস্টের সঙ্গে একবার পরামর্শ করে নেওয়া উচিত।